মাসউদুর রহমান -blog


...


 


হযরত আউলিয়ায়ে কিরাম রহমতুল্লাহি আলাইহিম উনাদের বিরোধিতা করতে গিয়ে লা-মাযহাবী, আহলে হদছ, ওহাবী, সালাফীদের পবিত্র আয়াত শরীফ উনার মনগড়া,


(১) হযরত আউলিয়ায়ে কিরাম রহমাতুল্লাহি আলাইহিম উনাদের বিরোধিতা করা, উনাদের নামে অপপ্রচার চালানো এটাই হয়ে গেছে লা-মাযহাবী, সালাফী ওহাবীদের নিত্যদিনের কাজ। নাউযুবিল্লাহ! এই বিভ্রান্তি ছড়ানোর ক্ষেত্রে মহান আল্লাহ পাক উনার পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার অপব্যাখ্যা করতেও কোন প্রকার ভীতির সঞ্চার হচ্ছেনা



পবিত্র নামাযের সারি মিলানো এবং কাতারে ফাঁক বন্ধ করে দাঁড়ানো মহান আল্লাহ পাক উনার পছন্দনীয় একটি আমল মুবারক


সম্মানিত ও পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে- عَنْ حَضْرَتْ الْبَرَاءِ بْنِ عَازِبٍ رَضِىَ اللهُ تَعَالَى عَنْهُ قَالَ كَانَ رَسُوْلُ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ يَقُوْلُ اِنَّ اللهَ وَمَلَائِكَتَهُ يُصَلُّوْنَ عَلَى الَّذِيْنَ يَلُوْنَ الصُّفُوْفَ الْاُوْلَى وَمَا مِنْ خَطْوَةٍ اَحَبُّ



উলামায়ে ‘সূ’ বা ধর্মব্যবসায়ী কারা? কি তাদের পরিচয়?


নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘আমার উম্মতের মধ্যে যারা উলামায়ে ‘সূ’ বা ধর্মব্যবসায়ী তারাই সৃষ্টির নিকৃষ্টেরও নিকৃষ্ট।’ উলামায়ে ‘সূ’ বা ধর্মব্যবসায়ী কারা? কি তাদের পরিচয়? এ সম্পর্কিত পবিত্র ইলম অর্জন করা সকলের জন্যই



হিদায়েত পেতে হলে মুজাদ্দিদে আ’যম ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার সম্মানিত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনাকে অনুসরণ করতে হবে


আপনি নিজেকে মুসলমান মনে করছেন, মুসলমান দাবি করছেন, নিজেকে হিদায়েতপ্রাপ্ত মনে করছেন, খালিছ মু’মিন মুসলমান মনে করছেন, মুত্তাক্বী মনে করছেন, কিন্তু সঠিকভাবে ফিকির করে দেখুন যে, উপরোক্ত গুণাবলীর একটিও আপনার মধ্যে নেই। আপনার পিতা মুসলমান, মাতা মুসলমান, দাদাও মুসলমান সেই সূত্র



সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন করা কুল কায়িনাতের সর্বশ্রেষ্ঠ ইবাদত


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, يَااَيُّهَا النَّاسُ قَدْ جَاءَتْكُمْ مَوْعِظَةٌ مّـِنْ رَّبّـِكُمْ وَشِفَاء لّـِمَا فِى الصُّدُوْرِ وَهُدًى وَّرَحْمَةٌ لّـِلْمُؤْمِنِيْنَ. قُلْ بِفَضْلِ اللهِ وَبِرَحْمَتِهٖ فَبِذٰلِكَ فَلْيَفْرَحُوْا هُوَ خَيْرٌ مّـِمَّا يَـجْمَعُوْنَ. অর্থ: “হে মানুষেরা! হে সমস্ত জিন-ইনসান, কায়িনাতবাসী!



শনাক্তকরণে আঙুলের ব্যবহার পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মাঝেই রয়েছে


শুনে আশ্চর্য হবেন শনাক্তকরণে আঙ্গুলের ব্যবহারের দলীল রয়েছে পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মাঝে। পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত রয়েছে – أَيَحْسَبُ الْإِنسَانُ أَلَّن نَجْمَعَ عِظَامَهُ “মানুষ কি মনে করে যে, আমি তার অস্থিগুলি একত্রিত করতে পারব না?” এই পবিত্র আয়াত



উলামায়ে সূ’ মুনাফিক্ব, রিয়াকার সৃষ্টির নিকৃষ্ট জীব; এরা জাহান্নামে সবচেয়ে বেশি শাস্তি ভোগ করবে


উলামায়ে সূ’ মুনাফিক্ব, রিয়াকাররা জাহান্নামে সবচেয়ে বেশি কঠিন শাস্তি ভোগ করবে। এদের অন্তরে থাকে গইরুল্লাহ। এরা লোক দেখানো কিছু ইবাদত করে থাকে। আর জাহান্নাম সম্পর্কে জানা উচিত প্রত্যেক বান্দা-বান্দীদের। পঞ্চম হিজরী শতকের মুজাদ্দিদ, হুজ্জাতুল ইসলাম ইমাম গাজ্জালী রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি উনার



প্রত্যেক মুসলমান পুরুষ-মহিলা ও জিন-ইনসান সকলের জন্য দায়িত্ব-কর্তব্য হচ্ছে- হযরত খুলাফায়ে রাশিদীন আলাইহিমুস সালাম উনাদের অনুসরণে মহাপবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ


মহাসম্মানিত হাবীব, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘আমার মহাসম্মানিত সুন্নত মুবারক এবং সুপথপ্রাপ্ত হযরত খুলাফায়ে রাশিদীন আলাইহিমুস সালাম উনাদের মহাসম্মানিত সুন্নত মুবারক পালন করা তোমাদের সকলের জন্য ফরয।’ সুবহানাল্লাহ! মহাসম্মানিত হাবীব, নূরে মুজাসসাম,



সকলের জন্যই ফরয হচ্ছে- মহান ছহিবে নিয়ামতে উযমা মুবারক লাভ করার কারণে ঈদ বা খুশি প্রকাশ করা। অর্থাৎ মহাসম্মানিত


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, তোমাদের প্রতি মহান আল্লাহ পাক উনার প্রদত্ত্ব নিয়ামতসমূহকে তোমরা স্মরণ করো বা নিয়ামতসমূহের তোমরা আলোচনা করো। সুবহানাল্লাহ! মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হাবীব, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি



এক নজরে সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ, সিবত্বতু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, আহলু বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম


সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত যাইনাব বিনতে কাররামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহাস সালাম তিনি হচ্ছেন নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মহাসম্মানিতা সিব্ত্বতুন (নাতনী) আলাইহাস সালাম। সুবহানাল্লাহ! তিনি হচ্ছেন মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম



ইলিম অর্জন করা ফরয। তাই সম্মানিত ইলিম কার থেকে অর্জন করবেন তা দেখে নিতে হবে


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি বান্দা-বান্দিকে জানিয়ে দিলেন যে, তোমরা বল হে আমার প্রতিপালক! আপনি আমার ইলিম বৃদ্ধি করে দিন। সুবহানাল্লাহ! আবার পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, প্রত্যেক নর-নারীর জন্য ইলিম অর্জন করা ফরজ। কাজেই সমস্ত



১৯৭১ সালে অ্যাডভোকেট শিশির মনিরের বাপ-চাচাদের হত্যা-ধর্ষণের ইতিহাস


৬ই ডিসেম্বর ছিলো মাখন মিয়ার বিয়ে। আর সেই বিয়ে উপলক্ষে ৫ই ডিসেম্বর মুক্তিযোদ্ধাদের একটি দলকে বাসায় ডেকে রান্না করে খাওয়ায় ঐ বাড়ির নারীরা। সে খবর পৌছে যায় অ্যাডভোকেট শিশির মনিরের চাচা খালেক মনিরের বাহিনীর হাতে। আর তাতে ক্ষেপে যায় শিশির মনিরের