মাসউদুর রহমান -blog


...


 


সকলের জন্য দায়িত্ব-কর্তব্য হচ্ছে- প্রতিটি সাইয়্যিদু সাইয়্যিদিল আইয়্যাম শরীফ বা মহাসম্মানিত মহাপবিত্র ইছনাইনিল আযীম শরীফ, মহাপবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইয়াওমুল ইছনাইনিল আযীম শরীফ (সোমবার) মহাপবিত্র বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ করেন।” সুবহানাল্লাহ! নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি “ইয়াওমুল



পবিত্র জুমুয়ার দিন উনার ফাযায়িল ফযীলত ও আদব


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি উম্মতে হাবীবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদেরকে যে সমস্ত নিয়ামত দ্বারা ধন্য করেছেন উনাদের মধ্যে পবিত্র জুমুয়ার দিন হচ্ছে অন্যতম। এই দিন হচ্ছে উম্মতের সাপ্তাহিক ঈদের দিন। সুবহানাল্লাহ! খ¦ালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক



সম্মানিত ইসলামী শরীয়ত উনার উসূল আর দেওবন্দীদের উসূল সম্পূর্ণ আলাদা


তাইতো বলি, কেনো মানুষ দেওবন্দী মালানাদেরকে এত ঘৃনা করে। কেনো মানুষ এদেরকে বাতিল বলে। কেনো মানুষ এদেরকে খারেজী বলে। কেনো মানুষ এদেরকে হিন্দু মুশরিকদের পুজারী বলে। কেনো মানুষ এদেরকে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াত হতে বহিষ্কৃত ফিরকা বলে। এদের নিয়মনীতি, চলা ফেরা,



গান লেখা, গাওয়া, শোনা এবং গান-বাজনা ও নাচের অনুষ্ঠান করা, দেখা, শোনা প্রত্যেকটাই হারাম, আর গানকে হালাল বলা কুফরী


মহাসম্মানিত হাবীব, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘আমি বাদ্যযন্ত্র ও মূর্তি ধ্বংস করার জন্য প্রেরিত হয়েছি।’ সুবহানাল্লাহ! সম্মানিত ইসলামী শরীয়ত উনার দৃষ্টিতে- পবিত্র সামা’ শরীফ উনার মাহফিল অর্থাৎ পবিত্র হামদ শরীফ, পবিত্র না’ত



কাফির-মুশরিকদের মতো মুসলমান নামধারী ৭২টি বাতিল আক্বীদার অন্তর্ভুক্ত ফিরক্বাও চিরজাহান্নামী


সকল কাফির-মুশরিক দলের অন্তর্ভুক্ত লোকেরা যেমন ইহুদী, খ্রিস্টান, হিন্দু, বৌদ্ধ, মজূসী, নাস্তিক ইত্যাদি তারা মহান আল্লাহ পাক উনার মনোনীত বিধান সম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার আদেশ-নিষেধসমূহ মানে না এবং বিশেষ করে মহান আল্লাহ পাক উনার শ্রেষ্ঠতম রসূল সাইয়্যিদুল আম্বিয়া ওয়াল মুরসালীন, খাতামুন



খোলা চিঠি ও উদাত্ত আহ্বান: “সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ”, “পবিত্র ঈদে মীলাদে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম” সর্বশ্রেষ্ঠ এ মুবারক


আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমতুল্লাহ। বাংলাদেশ সরকারের অভ্যুদয়ের সঙ্গে যাদের কথা অনিবার্যভাবে আসে তারা হলেন, ত্রিশ লাখ শহীদ। প্রসঙ্গত, এ ‘শহীদ’ শব্দটি সর্বোতভাবেই পবিত্র দ্বীন ইসলাম সম্পর্কীয় বিশ্বাস, অনুভূতি ও আবেগ থেকে উৎসারিত। অর্থাৎ এদেশের উৎপত্তির সাথে পরিপূর্ণভাবে জড়িয়ে আছে সম্মানিত ইসলামী



রাজারবাগ দরবার শরীফ সম্পর্কে গুজব ও মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করার দায়ে দৈনিক সমকাল পত্রিকার কর্তৃপক্ষ বরাবর চূড়ান্ত আইনী নোটিশ


গতকাল ইয়াওমুস সাবত (শনিবার, ১৬ অক্টোবর) রাজারবাগ দরবার শরীফ উনার মুখপাত্র আল্লামা মুহম্মদ মাহবুব আলমের পক্ষ থেকে অ্যাডভোকেট মুহম্মদ মেছবাহ উদ্দিন চৌধুরী এই আইনী নোটিশ প্রেরণ করেন। নোটিশ থেকে জানা যায়, সম্প্রতি দৈনিক সমকাল পত্রিকার অনলাইনে প্রকাশিত একটি সংবাদ মিথ্যা, মনগড়া



রাজারবাগ দরবার শরীফের মুখপাত্র মুহম্মদ মাহবুব আলম আরিফ তসলিমা নাসরিনসহ তিনজনের বিরুদ্ধে ‘ইসলাম বিদ্বেষ ও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত’


ভারতে বসবাসরত বাংলাদেশি লেখক তসলিমা নাসরিনসহ তিনজনের বিরুদ্ধে ‘ইসলাম বিদ্বেষ ও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত’ দেয়ার অভিযোগে দায়ের করা একটি মামলায় আদালতে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল (সিটিটিসি) ইউনিট। অভিযুক্ত অন্য দু’জন হলেন উইমেন চ্যাপ্টার ওয়েবসাইটের সম্পাদক সুপ্রীতি ধর ও



পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার মধ্যে একটি বিশেষ দিন ‘পবিত্র আখিরী চাহার শোম্বাহ শরীফ’


‘পবিত্র আখিরী চাহার শোম্বাহ শরীফ’ বলতে পবিত্র ছফর শরীফ মাস উনার শেষ বুধবার উনাকে বলা হয়। পবিত্র ছফর শরীফ মাস ব্যতীত আর কোনো মাস উনার শেষ আরবিয়া (বুধবার)কে ‘পবিত্র আখিরী চাহার শোম্বাহ শরীফ’ বলা হয় না। যেমন ‘আশূরা’ শব্দটি আরবী ‘আশারাতুন’



ই.ফা. প্রকাশিত আবু দাউদ শরীফ কিতাবের হাদীছ শরীফ উনার ভুল অর্থ করে মূর্তি জায়িয বানানোর অপচেষ্টা


ইসলামবিদ্বেষী নাস্তিকরা মূর্তিকে হালাল করার জন্য ইসলামী ফাউন্ডেশন (ই.ফা.) থেকে প্রকাশিত আবু দাউদ শরীফের একটা হাদীছ শরীফ পেশ করলো। এটা দিয়ে তারা বোঝাতে চেয়েছে ছবি ভাস্কর্য জায়িয। নাউযুবিল্লাহ! হাতুড়ে ডাক্তার যে মানুষের জীবনের জন্য হুমকিস্বরূপ এটাই এখন প্রমাণ হবে। ইসলামী ফাউন্ডেশনের



মহাপবিত্র রবীউল আউওয়াল শরীফ মাস উনার চাঁদ তালাশ করতে হবে আগামী ২৯শে ছফর শরীফ ১৪৪৩ হিজরী, ৮ই খ্বমিস ১৩৮৯


মহান আল্লাহ পাক তিনি মহাপবিত্র হাদীছে কুদসী শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, ‘আমার মহাসম্মানিত হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! আমি যদি আপনাকে সৃষ্টি না করতাম; তবে আসমান-যমীন, লওহ-কলম কোনো কিছুই সৃষ্টি করতাম না।’ সুবহানাল্লাহ! বাংলাদেশে সাইয়্যিদু সাইয়্যিদিশ শুহূরিল আ’যম শরীফ



পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ নাযাত লাভের উসিলা


পবিত্র হাদীস শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, قَالَ رَسُوْلُ اللهِ صلى الله عليه وسلم مَنْ عَظَّمَ مَوْلِدِىْ كَانَ مَعِىَ فِى الْجَنَّةِ . নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “যে ব্যক্তি আমার পবিত্র বিলাদত