বাংলা ব্লগ -blog


আসুন আমরা সকলে মিলে ইসলামকে ও ইসলামের বিভিন্ন দিক তুলে ধরি যেন তা থেকে মানুষ ফায়দা লাভ করতে পারে।


 


এতো কিছুর পর কেন আমাকে বুঝতে হবে এই সরকার ইসলাম বান্ধব সরকার?


০১. সংবিধান থেকে “বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম” এবং আল্লাহ্‌ পাক থেকে আস্থা ও বিশ্বাস তুলে নেয়া। ০২. ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁশ করে, ভাইবা বোর্ডে হিন্দুদের বেশী মার্ক দিয়ে প্রশাসনে ঢুকানো। ০৩. পুলিশ ফোর্সে হিন্দুদের মাত্রাতিরিক্ত চাকুরী দান ও তাদের বেপরোয়া আচরণ। ০৪.



মোহ!!


আচ্ছা বড়লোক তথা ধনিক শ্রেণীদের বেশীর ভাগের একটি বিষয় লক্ষ করবেন তারা গরীবদের যত না টাকা পয়সা দিয়ে সাহায্য সহযোগিতা করে তার চেয়ে বেশী টাকা পয়সা এলো মেলো কাজে ব্যয় করে। আমরা মনে করতে পারি এটা করে হয়তো সে মনের মধ্যে



ভূতের পা নাকি উল্টা দিকে থাকে!


কথায় আছে ভূতের পা নাকি উল্টা দিকে থাকে! আর মানুষ নাকি মরলে ভূত হয়। তার মানে দাড়ায় ভূতের সব কাজ গুলো হয় এলোমেলো। এই গুলো হল কল্প কাহিনী বাস্তবে তার অস্তিত্ব নাই। কিন্তু আশ্চর্যের বিষয় হল এই গুলো কালের বিবর্তে সত্য



ছবির মুহব্বত!!!


আচ্ছা একটা দুধের বাচ্চা কত টুকু বুঝে? সে কি হালাল হারাম পার্থক্য করতে পারে? সে কি কোনটা ভাল কোনটা মন্দ তা বলতে বা বুঝতে পারে? তার কি  সাধ্য আছে ছবির মাহাত্য বের করার? পিতা মাতা কি কখনো চায় তার সন্তানকে আগুনে



আয়ারল্যান্ডে বাড়ছে মুসলমানের সংখ্যা, চাহিদা বাড়ছে ইসলামী পোষাকের


আয়ারল্যান্ড উত্তর-পশ্চিম ইউরোপে অবস্থিত একটি দ্বীপ রাষ্ট্র। রাষ্ট্রটি আয়ারল্যান্ড দ্বীপের পাঁচ-ষষ্ঠাংশ নিয়ে গঠিত। যা ১৯২১ সালে যুক্তরাজ্য থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে প্রথমে আইরিশ ফ্রি স্টেট এবং পরবর্তিতে প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড নামে গঠিত হয়। দেশটির রাজধানী ডাবলিন। যা আয়ারল্যান্ড দ্বীপের সর্ববৃহৎ শহর। আয়ারল্যান্ডে মুসলমানদের



বিদেশে গেলে হিন্দুরাও গরুর গোশত খায় – লালু প্রসাদ যাদব


বিহারের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী এবং আরজেডি প্রধান লালু প্রসাদ যাদব বলেছে, ‘বিদেশে গিয়ে হিন্দুরাও গরুর গোশত খায়’। লালু প্রসাদ যাদব মন্তব্য করে, ‘গরুর গোশত খাওয়ার ইস্যুকে সাম্প্রদায়িক চেহারা দেয়ার চেষ্টা করছে আরএসএস-বিজেপি। বিদেশে গিয়ে অনেকেই এমনকি হিন্দুরাও গরুর গোশত খায়।’ লালু প্রসাদ



যে কাফির কর্তৃক আজ সারাবিশ্বে মুসলমানরা নির্যাতিত সে কাফিরের কথিত বিশ্বকাপ ফুটবল মুসলমান কি করে দেখে উল্লাস করে?


একদিন রাত ২টার দিকে বাসায় যাচ্ছিলাম। রাস্তায় হাঁটতে হাঁটতে- শুনতে পেয়েছিলাম পছন্দের দল গোল করায় মুসলমানদের উল্লাস ধ্বনি। অবাক যেমন হলাম, তেমনি কষ্টও পেলাম। যে সময়ে মুসলমানরা খেলা দেখে উল্লাস করছে সে সময়ে – ফিলিস্তিনে হানাদার ইসরাইলী কাফিররা মুসলমানদেরকে শহীদ করছে,



বিক্রি বন্ধ করলে হবে না, আজকেই জনসম্মুখে সাংবাদিক ডেকে সমস্ত বইগুলো পুড়িয়ে ফেলতে হবে!


নাস্তিক রোদেলা প্রকাশনী বলছে, ‘নবী মুহাম্মদের ২৩ বছর” বইটি তারা বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছে। কিন্তু তাদের মূল উদ্দেশ্য ভিন্ন- ইসলাম বিরোধী বই লিখে তারা মুসলমানদের প্রতিবাদী স্ট্যাটাসের মাধ্যমে বইটি’র নাম প্রচার-প্রসার করবে। এরপর আপাতত বলবে, ‘বই বিক্রি বন্ধ’। কিন্তু পরে সুযোগ



ঈসায়ী মুসলিম (একটি ফিতনা) থেকে সাবধান মুসলমান! ১৪


বাংলাদেশে হিন্দুয়ানী ফিতনার সাথে সাথে একটি ফিতনা মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। আর এই ফিতনার নাম হল “ঈসায়ী মুসলিম” বা ইংরেজিতে “Je suis Muslim” নামে পরিচিত। বেশ কয়েক বছর আগে একটি পত্রিকা বিক্রয় কেন্দ্রের এক বিক্রেতা আমাকে জানালো তাদের কাছে কিছু শাদা



ঈসায়ী মুসলিম (একটি ফিতনা) থেকে সাবধান মুসলমান! ১৩


বাংলাদেশে হিন্দুয়ানী ফিতনার সাথে সাথে একটি ফিতনা মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। আর এই ফিতনার নাম হল “ঈসায়ী মুসলিম” বা ইংরেজিতে “Je suis Muslim” নামে পরিচিত। বেশ কয়েক বছর আগে একটি পত্রিকা বিক্রয় কেন্দ্রের এক বিক্রেতা আমাকে জানালো তাদের কাছে কিছু শাদা



ঈসায়ী মুসলিম (একটি ফিতনা) থেকে সাবধান মুসলমান! ১২


বাংলাদেশে হিন্দুয়ানী ফিতনার সাথে সাথে একটি ফিতনা মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। আর এই ফিতনার নাম হল “ঈসায়ী মুসলিম” বা ইংরেজিতে “Je suis Muslim” নামে পরিচিত। বেশ কয়েক বছর আগে একটি পত্রিকা বিক্রয় কেন্দ্রের এক বিক্রেতা আমাকে জানালো তাদের কাছে কিছু শাদা



ঈসায়ী মুসলিম (একটি ফিতনা) থেকে সাবধান মুসলমান! ১১


বাংলাদেশে হিন্দুয়ানী ফিতনার সাথে সাথে একটি ফিতনা মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে। আর এই ফিতনার নাম হল “ঈসায়ী মুসলিম” বা ইংরেজিতে “Je suis Muslim” নামে পরিচিত। বেশ কয়েক বছর আগে একটি পত্রিকা বিক্রয় কেন্দ্রের এক বিক্রেতা আমাকে জানালো তাদের কাছে কিছু শাদা