অতি পরিচিত -blog


...


 


সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুর রবি আলাইহিস সালাম উনার মহামূল্যবান নছীহত মুবারক


  সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুর রবি আলাইহিস সালাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, * আমি আশ্চর্য হই ওই ব্যক্তি সম্পর্কে- যে ফখর ও অহঙ্কার করে। কারণ গতকাল যে সামান্য পানি ছিল এবং আগামীকাল যে মৃত্যুবরণ করে আবার মাটিতে মিশে যাবে, তার অহঙ্কার দেখলে



সম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার ভিত্তি হচ্ছেন সম্মানিত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনারা


জামিউল আহাদীছ, জামউল জাওয়ামি’, জামিউল কবীর, কানযুল উম্মাল ইত্যাদি কিতাবসমূহে বর্ণিত রয়েছে- ইমামুল আউওয়াল মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহ সাইয়্যিদুনা হযরত আলী র্কারামাল্লাহু ওয়াজহাহূ আলাইহিস সালাম তিনি বর্ণনা করেন, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাস্সাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম



সমস্ত বিধর্মীদের সর্বপ্রকার ষড়যন্ত্র থেকে সতর্ক থাকতে হবে


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘আহলে কিতাব অর্থাৎ বিধর্মীরা চায় তোমরা পবিত্র ঈমান আনার পর তোমাদেরকে কাফির বানিয়ে দিতে।’ নাউযুবিল্লাহ! ইহুদী, নাছারা, মজুসী, মুশরিকরা সূক্ষ্মভাবে মুসলমানদের দ্বারা ছোঁয়াচে বিশ্বাস করিয়ে, নামাযের সময় মাস্ক ব্যবহার করিয়ে হারামকে হালাল, হালালকে হারাম



পবিত্র মুহররমুল হারাম শরীফ মাস হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে ও হযরত আওলাদে রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে


নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘আমার হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে মুহব্বত করো; আমার সন্তুষ্টি মুবারক লাভের জন্য।’ সুবহানাল্লাহ! পবিত্র মুহররমুল হারাম শরীফ মাস হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে



উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আছ ছামিনাহ্ আলাইহাস সালাম উনার মহাসম্মানিত পিতা আলাইহিস সালাম উনার এবং সম্মানিত দুই ভাই উনাদের


কিতাবে বর্ণিত রয়েছে, فَأَقْبَلَ أَبُوهَا حضرت الْحَارِثُ بْنُ أَبِي ضِرَارٍ عليه السلام بِفِدَاءِ ابْنَتِهِ فَلَمَّا كَانَ بِالْعَقِيقِ نَظَرَ إلَى الْإِبِلِ الَّتِي جَاءَ بِهَا لِلْفِدَاءِ فَرَغِبَ فِي بَعِيرَيْنِ مِنْهَا فَغَيَّبَهُمَا فِي شِعْبٍ مِنْ شِعَابِ الْعَقِيقِ ثُمَّ أَتَى إلَى النَّبِيِّ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ



সুমহান পবিত্র বরকতময় ২২শে শাওওয়াল শরীফ। সুবহানাল্লাহ! যা আখাছ্ছুল খাছ আহলু বাইত শরীফ ও আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদাতুনা হযরত নাক্বীবাতুল


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘হযরত আহলু বাইত শরীফ ও হযরত আওলাদে রসূল আলাইহিমুস সালাম ও আলাইহিন্নাস সালাম উনারা আসমান ও যমীনের নিরাপত্তা দানকারী।’ সুবহানাল্লাহ! আজ সুমহান পবিত্র বরকতময় ২২শে শাওওয়াল শরীফ। সুবহানাল্লাহ!



গান-বাজনার ইহ-পরকালীন ক্ষতি হতে মুসলিম সমাজকে রক্ষা করা জরুরী


বর্তমানে সমাজ পরিবারকে প্রচলিত গান বাজনা এমন এক কঠিন ব্যাধী হিসেবে আক্রান্ত করেছে যে, এর থেকে মুক্ত কে বা কারা তা নির্ণয় করা মুশকিল হয়ে পড়েছে। কেউ গান করছে, কেউবা গান শুনছে, কেউবা গানের শো আয়োজন করছে, আবার কেউ গানের ব্যবসা



‘উন্নয়নের’ কথা বলে যারা মসজিদ ভাঙছে তাদেরকে কঠিন পরিণতি ভোগ করতে হবে


যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি সম্মানিত কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, وَمَنْ أَظْلَمُ مِمَّنْ مَنَعَ مَسَاجِدَ اللهِ أَنْ يُذْكَرَ فِيهَا اسْمُهُ وَسَعَى فِي خَرَابِهَا أُولَئِكَ مَا كَانَ لَهُمْ أَنْ يَدْخُلُوهَا إِلَّا خَائِفِينَ لَهُمْ فِي الدُّنْيَا خِزْيٌ



আহলে কিতাব উনাদের মধ্যে অনেকেই হক্ব তালাশী ছিলেন।


আহলে কিতাব উনাদের মধ্যে অনেকেই হক্ব তালাশী ছিলেন। উক্ত আহলে কিতাব উনাদের সম্পর্কে মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- لَيْسُوا سَوَاءً مِّنْ أَهْلِ الْكِتَابِ أُمَّةٌ قَائِمَةٌ يَتْلُونَ آيَاتِ اللَّـهِ آنَاءَ اللَّيْلِ وَهُمْ يَسْجُدُونَ অর্থ: “উনারা সবাই সমান নন। আহলে কিতাব



বদকার লোকের দুঃসহ মৃত্যুর একটি বাস্তব উদাহরণ 


এক লোক মারা যাওয়ার সময় খুবই ছটফট করছিল, চোখ বড় বড় করে এদিক-সেদিক তাকাচ্ছিল, হাত-পা ছুটাছুটি করছিল। ছটফট করতে করতে শেষ পর্যন্ত চকির উপর থেকে নিচে পড়ে মারা যায়। এর মূল কারণ হলো-সে যেহেতু বদকার ছিলো তাই তার রুহ কবজ করার



গোল্ডেন রাইস একটি লোভনীয় “মূলা” 


গোল্ডেন রাইস প্রচলনের জন্য দেখানো হচ্ছে বিশেষ ধরণের লোভনীয় “মূলা”। এই রাইস দিয়ে বাংলাদেশ, ফিলিপাইনের রাতকানা রোগ সারাতে চায় কোম্পানি। এটা নাকি তাদের মানবহিতৈষী কর্মের একটা নিদর্শন। কোম্পানির বয়ান হচ্ছে এই রাইসে বিটা ক্যারোটিন উৎপাদনকারি জিন ট্রান্সফার করা হয়েছে, ফলে এই



বাল্যবিবাহমুক্ত এলাকা ঘোষণা করার আসল রহস্য কি? 


ইদানীং পত্র-পত্রিকা-মিডিয়াতে একটি সংবাদ খুব হাইলাইট করে প্রচার করা হয়। সেটা হলো- আজ অমুক জেলা, কাল অমুক উপজেলা কিংবা ইউনিয়নকে বাল্যবিবাহ মুক্ত হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। অর্থাৎ দ্বীন ইসলাম বিষয়ে জাহিল প্রশাসন এবং বিদেশী বিজাতি এনজিও গং খুব তৎপরতার সাথে জেলা,