মুহম্মদ মাহদিউল ইসলাম -blog


...


 


সরকারের জন্য ফরয হচ্ছে- মুসলমানদের ওয়াজিব ইবাদত পবিত্র কুরবানী করার সুবিধার্থে সারাদেশে কমপক্ষে ১০ দিন পূর্ব থেকেই পবিত্র কুরবানীর


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইশরাদ মুবারক করেন, তোমরা পরস্পর পরস্পরকে নেকী ও পরহেযগারীর মধ্যে সাহায্য-সহযোগিতা করো, পাপ ও নাফরমানীর মধ্যে সাহায্য-সহযোগিতা করো না। তাই ৯৮ ভাগ মুসলমান ও রাষ্ট্রদ্বীন ইসলাম উনার দেশের সরকারের জন্য ফরয হচ্ছে- মুসলমানদের ওয়াজিব ইবাদত পবিত্র কুরবানী



পবিত্র শাওওয়াল শরীফ মাসে ৬টি রোযা রাখা খাছ সুন্নত মুবারক এবং অশেষ ফযীলত লাভের কারণ।


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘যে ব্যক্তি পবিত্র রমাদ্বান শরীফ মাস উনার রোযা রাখার পর পবিত্র শাওওয়াল শরীফ মাস উনার ৬টি রোযা রাখলো, সে যেন সারা বৎসরই রোযা রাখলো।’ সুবহানাল্লাহ! পবিত্র শাওওয়াল শরীফ



সুমহান মহাপবিত্র ও মহাবরকতময় ৯ই রমাদ্বান শরীফ। সুবহানাল্লাহ! আখাছ্ছুল খাছ আহলু বাইত শরীফ সাইয়্যিদুনা হযরত খলীফাতুল উমাম আলাইহিস সালাম


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “(হে আমার হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম!) আপনি বলে দিন, আমি তোমাদের নিকট কোনো বিনিময় চাচ্ছি না। তোমাদের জন্য ফরয-ওয়াজিব হচ্ছে আমার হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে মুহব্বত করা, তা’যীম-তাকরীম মুবারক করা,



শয়তানের ওয়াসওয়াসার কারণে কোন গুনাহর কাজ সংগঠিত হলে উপায় কি?


শয়তান নিজে বিভ্রান্ত এবং সে মানুষকেও বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করে। এ প্রসঙ্গে মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র সূরা হিজর শরীফ উনার ৩৯ ও ৪০ নং আয়াত শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন- قَالَ رَبِّ بِمَا اَغْوَيْتَنِىْ لَاُزَيِّنَنَّ لَهُمْ فِىْ الْاَرْضِ وَلَاُغْوِيَنَّهُمْ



আশ্চর্য বিষয়! কুরআন শরীফ পড়তে জানে না নতুন প্রজন্ম


রাজধানী ঢাকায় বিষয়টি নিয়ে ১ম অভিজ্ঞতা হয়। আমারই এক আত্মীয়ের বন্ধুর এক ছেলে ৯ম শ্রেণীতে পড়ে, অথচ সে কুরআন শরীফ তথা আরবী পড়তে জানে না। শুনে খুবই আশ্চর্য হয়েছিলাম। কিন্তু এখন দিন যত যাচ্ছে কুরআন শরীফ ও আরবী পড়তে না জানা



মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ১২ই শা’বান শরীফ। সুবহানাল্লাহ! মালিকুত তামাম, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘তোমরা মহান আল্লাহ পাক উনার নিয়ামত মুবারক (নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে) স্মরণ করো।” সুবহানাল্লাহ! আজ মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ১২ই শা’বান শরীফ। সুবহানাল্লাহ! মালিকুত তামাম, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর



সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুর রবি’ আলাইহিস সালাম তিনি কারবালার হৃদয় বিদারক ঘটনার পর আর কখনো হাসেননি


কারবালার ঘটনার পর সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুর রবি’ আলাইহিস সালাম তিনি যখনই পানি দেখতেন, তখনই কারবালায় আহলু বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের পিপাসার কথা মনে পড়তো ও তিনি এতে অত্যন্ত ব্যথিত হতেন। তিনি কোনো ভেড়া বা দুম্বা জবাই করার দৃশ্য



সম্মানিত রজবুল হারাম শরীফ মাসে রোযা রাখার বেমেছাল ফযীলত মুবারক


মহান আল্লাহ পাক তিনি মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন, فَمَنْ يَّعْمَلْ مِثْقَالَ ذَرَّةٍ خَيْرًا يَّرَهُ অর্থ : “সুতরাং কেউ এক জাররাহ পরিমাণ নেক আমল করলেও সেটা দেখতে পাবে অর্থাৎ তার প্রতিদান দেয়া হবে।” সুবহানাল্লাহ! (সম্মানিত ও



সর্বপ্রথম যাঁরা সম্মানিত জান্নাত মুবারক-এ প্রবেশ করবেন, তিনি হচ্ছেন উনাদের মধ্যে অন্যতম


মহসম্মানিত ও মহাপবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে এসেছে, عَنْ حَضْرَتْ عَلِيٍّ كرم الله وجهه عَلَيْهِ السَّلَامُ قَالَ أَخْبَرَنِي رَسُولُ اللهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ أَنَّ أَوَّلَ مَنْ يَدْخُلُ الْجَنَّةَ أَنَا وَالنور الرابعة سيدتنا حَضْرَتْ الزهراء عَلَيْهَا السَّلَامُ (سيدتنا حَضْرَتْ فاطمة عَلَيْهَا



‘আন্তর্জাতিক পবিত্র সুন্নত মুবারক প্রচার কেন্দ্র’ থেকে সংগ্রহ করুন খাঁটি মধুসহ সকল সুন্নতী সামগ্রী


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত রয়েছে- নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ, হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, দু’টি বিষয় প্রতিষেধক হিসেবে গ্রহণ করো মধু এবং পবিত্র কুরআন শরীফ।” উম্মুল মু’মিনীন আছ ছালিছা হযরত ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম তিনি বলেন,



প্রসঙ্গ : সিদ্ধিরগঞ্জে গান-বাজনা নিষিদ্ধ


শুধু সিদ্ধিরগঞ্জে নয় সারা বাংলাদেশেই হারাম গান-বাজনা নিষিদ্ধ করতে হবে আব্দুল আজীজ ইসলামী শরীয়তে গান-বাজনা হারাম, গান-বাজনা মানুষের অন্তরের মধ্যে নেফাকী পয়দা করে, গান-বাজনা করতে করতে মানুষ মুনাফিক হয়ে যায়, ইসলাম থেকে দূরে সরে যায়, ইসলামী আদর্শ ঐতিহ্য থেকে চ্যুত হয়ে



সুমহান মহাপবিত্র রজবুল হারাম শরীফ মাস উনার ১, ২, ৩, ৬, ১০, ১২, ১৩, ১৪, ১৫, ২৫, ২৭ এবং


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘মহান আল্লাহ পাক উনার নিদর্শন সম্বলিত দিবসগুলিকে স্মরণ করিয়ে দিন সমস্ত কায়িনাতকে। নিশ্চয়ই এর মধ্যে ধৈর্যশীল ও শোকরগোজার বান্দা-বান্দীর জন্য ইবরত ও নছীহত রয়েছে।’ সুবহানাল্লাহ! সুমহান মহাপবিত্র রজবুল হারাম শরীফ মাস উনার ১, ২,