ভোরের কথা -blog


...


 


অভিমত: ‘করোনা’ মুসলমানদের জন্য নয়; বরং জুলুমবাজ কাফেরদের জন্য এক মহাগযব


‘করোনা’ হলো ইসলামবিদ্বেষী ও মুসলিমবিদ্বেষী চীন, আমেরিকা, ফ্রান্স, ইতালি থেকে শুরু করে বিশ্বের সকল কাফিরগোষ্ঠীর উপর নাযিল হওয়া অত্যন্ত কঠিন এক গযব। এই গযবে পড়ে মুসলমানদের উপর জুলুমকারী, মুসলমান দেশের সম্পদ লুণ্ঠনকারী সকল কুফরী শক্তিগুলো আজ কুপোকাত। তারা আজ নিজেরাই অস্তিত্ব



সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম উনার নির্দেশনা মুবারক: আযাব-গযব, বালা-মুছীবত থেকে বাঁচতে- মীলাদ শরীফ পাঠ করুন এবং সুন্নতী


করোনা ভাইরাস নিয়ে মিডিয়াগুলো নানা ধরণের বিভ্রান্তিকর অপপ্রচার চালাচ্ছে। যা নিয়ে অনেকেই অহেতুক আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়ছেন। এমন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশসহ বিশ্বের সকল মুসলমানদের কি করণীয়, সে সম্পর্কে বিশেষ নির্দেশনা মুবারক দান করেছেন রাজারবাগ শরীফ উনার সম্মানিত মুর্শিদ ক্বিবলা সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম



সরকারের কথিত সীমিত পরিসর- যে সকল সাধারণ মানুষ কষ্টে আছে, সরকার কি তাদের বদদোয়াকে ভয় করে না?


সরকার কার কথা শুনে এ ধরণের সিদ্ধান্ত নিলো? সরকারী আমলা-কামলারাতো নানা পথে অঢেল টাকা-পয়সা কামিয়েছে, তাদেরতো চিন্তা থাকার কথা নয়। কিন্তু যে সকল দিনমজুর, দরিদ্র মানুষ যারা দিন আনে দিন খায়, তাদের ব্যপারে কি পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে? তাদেরকে যে সরকার ঘরের



নারীদের বেহায়াপনা পোশাক কখনোই কাম্য নয়


সকলেরই জানা আছে প্যান্ট-শার্ট হচ্ছে কাফির পুরুষদের পোশাক। ইহা কোনো মুসলমান পুরুষ বা মহিলার পোশাক না। মুসলমান পুরুষগণ পরবেন সুন্নতী কোর্তা, ইযার বা লুঙ্গী, সেলোয়ার বা পাজামা, মাথায় সুন্নতী টুপি, পাগড়ী, রুমাল ইত্যাদি। আর মুসলমান মহিলারা পরবেন ক্বমীছ, সেলোয়ার বা পাজামা,



খাছ সুন্নতী বাল্যবিবাহ নিয়ে নাস্তিক মুরতাদদের জিহালতী ও কুফরীমূলক বক্তব্যের দাঁতভাঙ্গা জাওয়াব


ইদানিং ব্লগ বা ফেসবুকে কিছু নাস্তিক বাল্যবিবাহের বিরোধিতা করে উম্মুল মু’মিনীন হযরত ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনার ৬ বছর বয়স মুবারকে শাদী মুবারক হওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে থাকে। নাউযুবিল্লাহ! উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আয়িশা ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনার ৬ বছর বয়স মুবারকে



সুমহান সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন করলে পরকালে যেমন জাহান্নামের কঠিন আযাব থেকে পরিত্রাণ লাভ হয় এবং সম্মানিত জান্নাত এবং


সুমহান সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন করলে পরকালে যেমন জাহান্নামের কঠিন আযাব থেকে পরিত্রাণ লাভ হয় এবং সম্মানিত জান্নাত এবং উনার নাজ-নিয়ামত নছীব হয়। একইভাবে সুমহান সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন করলে দুনিয়াবী শাস্তি থেকেও পরিত্রাণ পাওয়া যায়, এমনকি দুনিয়াবী সবচেয়ে বড় শাস্তি



এক নজরে সাইয়্যিদাতুন নিসায়ি ‘আলাল ‘আলামীন, আফদ্বলুন নাস ওয়ান নিসা বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা


সাইয়্যিদাতুন নিসায়ি ‘আলাল ‘আলামীন, আফদ্বলুন নাস ওয়ান নিসা বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আস সাবি‘য়াহ্ আত্বওয়ালু ইয়াদান আলাইহাস সালাম তিনি হচ্ছেন হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের মধ্যে বিশেষ ব্যক্তিত্বা মুবারক। সুবহানাল্লাহ! তিনি শুধু যিনি খালিক্ব



টাকার জন্য দেহব্যবসায় অনুমতি দিলো ব্রিটেন!!


মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার দোয়ার প্রতিফলন স্বরূপ মুসলমানদেরকে জুলুম নির্যাতনকারী কাফিরদের উপরে খোদায়ী গজব টাকা জন্য দেহব্যবসায় অনুমতি দিলো আর্থিক মন্দায় বিপর্যস্ত ব্রিটেন। (নাউযুবিল্লাহ!) এর ফলে কোনো গ্রেফতারের ভয়, আতঙ্ক ছাড়াই এখন থেকে দেহব্যবসা চালিয়ে যেতে পারবে সেখানকার মহিলারা। এমনকি



সুলত্বানুল হিন্দ হযরত খাজা ছাহেব রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি হাক্বীক্বী ওয়ারাছাতুল আম্বিয়া


এক কোটিরও বেশি বিধর্মী যে মহান ব্যক্তিত্ব উনার হাত মুবারক-এ হাত রেখে পবিত্র দ্বীন ইসলাম কবুল করেন, তিনিই হচ্ছেন সুলত্বানুল হিন্দ, সুলত্বানুল মাশায়িখ, সুমহান চীশতিয়া তরীক্বা উনার ইমাম ও প্রতিষ্ঠাতা, সপ্তম হিজরী শতকের মহান মুজাদ্দিদ হযরত খাজা ছাহেব রহমতুল্লাহি আলাইহি। তিনি



কিতাব পরিচিতি: ৪ উম্মু রসূলিনা ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম


উম্মু রসূলিনা ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উম্মু রসূলিনা (হযরত মা আমিনা আলাইহাস সালাম) উনার উপর লিখিত কোন বই কে পড়েছেন আমি জানিনা। তবে ইতোপূর্বে কলেবরে ছোট কিন্তু এত ঐতিহাসিক তথ্য উপস্থাপিত বই আমার পড়া হয়নি। লেখা হয়েছে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর



শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সংস্কৃতি চর্চার নামে হারাম কার্যক্রম হিতে বিপরীত হবে


শিক্ষার্থীদেরকে সন্ত্রাসবাদ বিমুখ করার লক্ষ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে (হারাম) সাংস্কৃতিক কার্যক্রম বাড়ানো হবে বলে ঘোষণা দিয়েছে সরকার। কিন্তু সরকারের এই সিদ্ধান্ত প্রকৃতপক্ষে বাস্তবসম্মত নয়, বরং বাস্তবতার নীরিখে হওয়া উচিত ছিলো বিপরীত। অর্থাৎ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ দেশের সর্বস্তরে সংস্কৃতির নামে হারাম কর্মকা- তুলে দিয়ে সঠিক



যিনি প্রকৃত ওলীআল্লাহ হবেন উনাকে ইবলিস শয়তান ধোঁকা দিতে পারে না


গউছুল আ’যম, সাইয়্যিদুনা আউলিয়া হযরত বড়পীর ছাহিব রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি একবার রমাদ্বান শরীফ মাসে ইফতারের কিছুক্ষণ পূর্বে মনে মনে ভাবলেন, আজ যদি মহান আল্লাহ পাক তিনি দয়া করে আমার জন্য কোনো বেহেশতী খাবার পাঠাতেন, তাহলে আমি তা দিয়ে ইফতার করবো। ইফতারের