শাহজালাল -blog


...


 


সাইয়্যিদু সাইয়্যিদিল আইয়্যাম শরীফ, সর্বশ্রেষ্ঠ দিন মুবারক


মহান আল্লাহ পাক তিনি এবং উনার প্রিয়তম রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনারা সুমহান, বরকতময় এবং ঐতিহাসিক ইয়াওমুল ইছনাইনিল আযীম শরীফ (সোমবার) উনাকে এতোই পছন্দ ও মুহব্বত করেছেন যে, এদিনে নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু



সুমহান বরকতময় পবিত্র ১৪ই রজবুল হারাম শরীফ। সুবহানাল্লাহ! মহাসম্মানিত ও মহপবিত্র উম্মুল মু’মিনীন আর রবি‘য়াহ সাইয়্যিদাতুনা হযরত ইবনাতু আবীহা


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘আমার হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে মুহব্বত করো আমার সন্তুষ্টি মুবারক লাভের জন্য।’ সুবহানাল্লাহ! আজ সুমহান বরকতময় পবিত্র ১৪ই রজবুল হারাম শরীফ। সুবহানাল্লাহ! মহাসম্মানিত ও মহপবিত্র



‘অছাম্প্রদায়িক’ চেতনার কারণেই বিশ্ববিদ্যালয়গুলো এখন ছা-ছমুছা-ছপের কারখানাতে পরিণত হয়েছে


“এক কাপ ছা, একটা ছমুছা, আর একটা ছপ, মাত্র দশ টাকায় এই তিনটা জিনিস পাওয়া যাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে।” প্রতি বছর আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাঙ্কিং প্রকাশিত হওয়ার পর যখন তাতে ঢাবি, বুয়েট কিংবা বাংলাদেশের কোনো ভার্সিটিকেই প্রথম ১০০০ এর তালিকায় খুঁজে



সাইয়্যিদু শাবাবি আহলিল জান্নাহ, সিবতু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, আহলু বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, ইবনু বিনতি


সিবতু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদুনা হযরত ইমাম ইবনে যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার মহাসম্মানিত আব্বা-আম্মা আলাইহমাস সালাম উনাদের হাবশায় সম্মানিত হিজরত মুবারক: আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মানিত নুবুওওয়াত মুবারক প্রকাশ পাওয়ার ৫ম সালের কথা। মুশরিকরা হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম উনাদের



সুমহান বরকতময় মহাপবিত্র আযীমুশ শান রবীউছ ছানী শরীফ উনার ৩রা শরীফ। সুবহানাল্লাহ! যা বিনতু রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘আমার সম্মানিত হযরত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে মুহব্বত করো আমার সন্তুষ্টি মুবারক লাভের জন্য।’ সুবহানাল্লাহ! আজ সুমহান বরকতময় মহাপবিত্র আযীমুশ শান রবীউছ ছানী শরীফ উনার ৩রা



এক নজরে উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আল ‘আশিরহ্ আলাইহাস সালাম উনার সম্মানিত পরিচিতি মুবারক


উম্মুল মু’মিনীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত আল ‘আশিরহ্ আলাইহাস সালাম তিনি হচ্ছেন হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের মধ্যে বিশেষ ব্যক্তিত্বা মুবারক। সুবহানাল্লাহ! তিনি শুধু যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি নন এবং নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া



পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উপলক্ষে হাদিয়া প্রদান করা সর্বোত্তম নেক কাজ


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন- تَعَاوَنُوا عَلَى الْبِرِّ وَالتَّقْوَىٰ وَلَا تَعَاوَنُوا عَلَى الْإِثْمِ وَ الله وان অর্থ: তোমরা নেকী ও পরহেযগারীতে পরস্পর পরস্পরকে সাহায্য সহযোগীতা কর। তোমরা পাপাচার ও পবিত্র শরীয়ত বিরোধী কাজে পরস্পর



পবিত্র কুরবানীর বিরুদ্ধে বড় ষড়যন্ত্র!


-কুরবানীর পশুর হাটকে শহরের বাইরে নেয়া হচ্ছে। -কুরবানীর পশুর হাটের সংখ্যা কমানো হচ্ছে। -সুবিধাজনক স্থানে পশু জবাই না করে সরকার কর্তৃক নির্দিষ্ট স্থানে জবাই করার নির্দেশ। -১৮ বছরের নিচের কাউকে কুরবানীর পশু জবাই নিষিদ্ধ করার নির্দেশ। …এভাবেই একের পর এক কুরবানীর



মূর্তিপূজারীদের অভিশাপ থেকে মুক্ত না হলে বাংলাদেশে আজ নগরসভ্যতার কোনো চিহ্ন থাকতো না!


মূর্তিপূজারীদের অভিশাপ থেকে মুক্ত না হলে বাংলাদেশে আজ নগরসভ্যতার কোনো চিহ্ন থাকতো না! আজ আমরা স্বাধীন দেশের নাগরিক। স্বাধীন দেশের নাগরিক হিসেবে আজ আমরা ঢাকা, চট্টগ্রামের ন্যায় শহরগুলো দেখে অভ্যস্ত। কিন্তু এই শহরগুলো একদিনে তৈরি হয়নি, ব্রিটিশ আমলে এগুলো আজকের দিনের



হারাম খেলার মাধ্যমে মানুষ যত গুনাহ করছে তার সবটাই উলামায়ে সূ’দের আমলনামায় যোগ হবে


খেলা নিয়ে ‘উলামায়ে সূ’ বা ধর্মব্যবসায়ী কওমী-দেওবন্দী-জামাতীরা মাঝে মাঝে প্রচার করে বেড়াচ্ছে- ওমুক দল খেলার মাঠে নামায পড়েছে বলে তারা খেলায় জয়লাভ করেছে’ কিংবা অমুক দলকে আল্লাহ ফিরিশতা দিয়ে সাহায্য করে জিতিয়ে দিয়েছে’ (নাউযুবিল্লাহ)। উল্লেখ্য, পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে মহান



খাছ সুন্নতী বাল্যবিবাহ নিয়ে চু-চেরা করা ইসামবিদ্বেষী মুনাফিকদের কাজ


বর্তমানে ইহুদীদের এজেন্ট হিসেবে মুসলমানদের ঈমান আমলের সবচেয়ে বেশি ক্ষতি করছে যারা, তারা হলো “উলামায়ে সূ”। ইহুদীদের এজেন্ট উলামায়ে ‘সূ’রা হারাম টিভি চ্যানেল, পত্র-পত্রিকা, কিতাবাদি ও বক্তব্য বা বিবৃতির মাধ্যমে খাছ সুন্নতী বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে বলছে। অর্থাৎ তাদের বক্তব্য হচ্ছে সম্মানিত শরীয়ত



দুনিয়ার বাড়ি-ঘরতো করা হলো, আখিরাতের বাড়ি-ঘর করা হয়েছে কি?


পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে বর্ণিত রয়েছে, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি যখন সম্মানিত মিরাজ শরীফে তাশরীফ মুবারক নেন তখন দেখলেন একটি মনোরম বালাখানা তৈরি হচ্ছে; কিন্তু হঠাৎ কাজ বন্ধ হয়ে গেল। তখন বিষয়টি উম্মতদেরকে অবহিত