সন্ধাতারা -blog


...


 


বর্তমান সময়ের ধর্মব্যবসায়ী উলামায়ে ‘সূ’রা ইতিহাস থেকেও শিক্ষা নিতে ব্যর্থ


দুনিয়াদার ধর্মব্যবসায়ী মালানা তথা উলামায়ে ‘সূ’দের অপতৎপরতায় মুসলিম মিল্লাতে কি ভয়ঙ্কর ফিতনা-ফাসাদ ছড়িয়ে পড়তে পারে এর এক ঐতিহাসিক নমুনা যালিম শাসক আকবরের সময়। তার গুমরাহী অপতৎপরতাকে আরো বেগবান করেছিলো এক শ্রেণীর উলামায়ে ‘সূ’ চক্র। তারা ছলে-বলে-কৌশলে হারামকে হালাল, হালালকে হারাম, পবিত্র



কথিত জাতীয় সংগীত সবদেশেই বার বার পরিবর্তন হয়েছে, শুধুমাত্র আকবরের দ্বীনে ইলাহীর অনুসারীরাই এটা অপরিবর্তনীয় মনে করে


আমাদের দেশে এক শ্রেণীর কথিত বুদ্ধিজীবিদের দেখা যায়, যারা ৪৩টি পতিতালয়ের মালিক রবীন্দ্রের লেখা জাতীয় সংগীত পরিবর্তন এর কথা এলে চার পায়া প্রাণীর মতো চিৎকার করতে থাকে- জাতীয় সংগীত কোন অপরিবর্তনীয় বিষয় নয়। অথচ পৃথিবীর দেশে দেশে জাতীয় সংগীত পরিবর্তন ঘটেছে।



এক নজরে আফদ্বলুন নিসা ওয়ান নাস বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, সাইয়্যিদাতুন নিসায়ি ‘আলাল আলামীন, সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল


আফদ্বলুন নিসা ওয়ান নাস বা’দা রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, সাইয়্যিদাতুন নিসায়ি ‘আলাল আলামীন, সাইয়্যিদাতু নিসায়ি আহলিল জান্নাহ, উম্মু আবীহা, বিনতু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদাতুনা হযরত আন নূরুছ ছানিয়াহ আলাইহাস সালাম উনার সবচেয়ে বড় পরিচয় মুবারক হচ্ছেন, তিনি হচ্ছেন



‘আন্তর্জাতিক পবিত্র সুন্নত মুবারক প্রচার কেন্দ্র’ উনার প্রচার-প্রসারে খালিছ নিয়তে এগিয়ে আসুন; খলীফাতু রসূলিল্লাহ মনোনীত হোন


মহান আল্লাহ পাক তিনি মানব জাতিকে আশরাফুল মাখলুকাত তথা সৃষ্টির শ্রেষ্ঠ জীব হিসাবে দুনিয়াতে প্রেরণ করেছেন। আর তাদের সার্বিক জীবন পরিচালনার জন্য মহাসম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনাকে একমাত্র পবিত্র দ্বীন হিসাবে মনোনীত করে উনার যাবতীয় বিধি-বিধান ওহী মুবারক দিয়ে জানিয়ে দিয়েছেন এবং



নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি এবং সকল হযরত নবী ও রসূল আলাইহিমুস সালাম উনারা


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘আমি (হযরত নবী ও রসূল আলাইহিমুস সালাম) উনাদের প্রতি পবিত্র ওহী মুবারক পাঠাতাম।’ সুবহানাল্লাহ! নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি এবং সকল হযরত নবী ও রসূল আলাইহিমুস সালাম উনারা মা’ছূম



ডিজিটাল বা অনলাইন কুরবানীর হাটের মাধ্যমে পশু কেনায় শরঈ শর্ত প্রতিপালিত হওয়া সম্ভব নয়, তাই এই ডিজিটাল বা অনলাইন


দ্বীন ইসলাম কখনোই উন্নত ও আধুনিক পদ্ধতিকে অস্বীকার করে না, তবে শর্ত হচ্ছে তা শরীয়তসম্মত হতে হবে। বর্তমান সময়ে বেচাকেনার একটি আধুনিক পদ্ধতি হচ্ছে ডিজিটাল বা অনলাইনে বেচাকেনা। তবে পবিত্র কুরবানীর পশু অনলাইনে বেচাকেনা করা কতটুকু শরীয়তসম্মত তা জানার জন্য কয়েকটি



আজ মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ১২ই যিলক্বদ শরীফ। সুবহানাল্লাহ! নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি যেহেতু


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘মহান আল্লাহ পাক উনার নিদর্শন সম্বলিত দিবসগুলিকে স্মরণ করিয়ে দিন সমস্ত কায়িনাতকে। সুবহানাল্লাহ! আজ মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ১২ই যিলক্বদ শরীফ। সুবহানাল্লাহ! নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি যেহেতু “মহাসম্মানিত ও



পবিত্র শাওওয়াল শরীফ, পবিত্র যিলক্বদ শরীফ ও পবিত্র যিলহজ্জ শরীফ এ তিনটি মুবারক মাস হচ্ছেন পবিত্র হজ্জ উনার মাস।


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘তোমরা মহান আল্লাহ পাক উনার সন্তুষ্টি মুবারক লাভের উদ্দেশ্যেই পবিত্র হজ্জ ও পবিত্র উমরাহ আদায় করো।’ সুবহানাল্লাহ! পবিত্র শাওওয়াল শরীফ, পবিত্র যিলক্বদ শরীফ ও পবিত্র যিলহজ্জ শরীফ এ তিনটি মুবারক মাস হচ্ছেন পবিত্র হজ্জ



মুসলমান ঈমানী বলে বলীয়ান হলে কাফিরদের উপর বিজয় নিশ্চিত


খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কুরআন শরীফে ইরশাদ মুবারক করেছেন, “মু’মিন-মুসলমানগণকে সাহায্য করাই মহান আল্লাহ পাক উনার হক্ব।” (পবিত্র সূরা রূম শরীফ : পবিত্র আয়াত শরীফ ৪৭) সুবহানাল্লাহ! মহাপবিত্র কুরআন শরীফে নাযিলকৃত পবিত্র আয়াত শরীফ দ্বারা সুস্পষ্টরূপে প্রতিভাত



মাহে শাওওয়াল শরীফ আইয়্যামুল্লাহ শরীফসমূহ


১ শাওওয়াল শরীফ: ক) ঈদে বিলাদতে সাইয়্যিদাতুনা হযরত নক্বীবাতুল উমাম আলাইহাস সালাম। খ) পবিত্র ঈদুল ফিতর। ৪ শাওওয়াল শরীফ: ঈদে বিলাদতে সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মুল মুমিনীন আছ ছালিছাহ ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম। ১২ শাওওয়াল শরীফ: পবিত্র সাইয়্যিদু সাইয়্যিদিল আ’দাদ ১২ই শরীফ। ১৪ শাওওয়াল



সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের সাথে অন্য কারো তুলনা করা কুফরী


হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনারা একমাত্র মহান আল্লাহ পাক তিনি এবং উনার হাবীব নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ব্যতিত সকলেরই সম্মানিতা “মাতা”। সুবহানাল্লাহ! কাজেই অন্য কোন মহিলাদের অবস্থার সাথে উনাদের অবস্থার মেছাল বা উদাহরণ দেয়া



মসজিদে জামায়াত নিষিদ্ধ করার অধিকার কারও নেই


পবিত্র মসজিদ মহান আল্লাহ পাক উনার ঘর। পবিত্র মসজিদ মুসলমানদের নিরাপত্তার স্থান, রহমত-বরকত লাভের স্থান। রোগ-শোক, আযাব-গযব থেকে রক্ষা পেতে দোয়া কামনার স্থান। পবিত্র ছলাত তথা নামায আদায় করার স্থান। একজন ঈমানদার, একজন মুসলমান মসজিদে যাবে, জামায়াতে নামায পড়বে, দোয়া-মুনাজাত করবে;