Archive for the ‘বাংলাদেশ’ Category

‘অছাম্প্রদায়িক’ চেতনার কারণেই বিশ্ববিদ্যালয়গুলো এখন ছা-ছমুছা-ছপের কারখানাতে পরিণত হয়েছে


“এক কাপ ছা, একটা ছমুছা, আর একটা ছপ, মাত্র দশ টাকায় এই তিনটা জিনিস পাওয়া যাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে।” প্রতি বছর আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয় র‌্যাঙ্কিং প্রকাশিত হওয়ার পর যখন তাতে ঢাবি, বুয়েট কিংবা বাংলাদেশের কোনো ভার্সিটিকেই প্রথম ১০০০ এর তালিকায় খুঁজে

১৯৮১ সালে তার সেই ‘প্রত্যাবর্তন’ এখন প্রশ্নবিদ্ধ


বলা হয়ে থাকে, ১৯৮১ সালে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মাধ্যমেই আওয়ামী লীগ নামক দলটির পুনর্জন্ম হয়েছে। কিন্তু প্রশ্ন হলো- বর্তমানের আ’লীগ সরকারের আমলে যেভাবে প্রশাসনে হিন্দুকরণ হচ্ছে, দেশের মসজিদ-মাদরাসার উপর খড়গ চালানো হচ্ছে, ইসলামী তাহযীব-তামাদ্দুনকে মুছে দিয়ে মুশরিকীয় অপসংস্কৃতি

কথিত জাতীয় সংগীত সবদেশেই বার বার পরিবর্তন হয়েছে, শুধুমাত্র আকবরের দ্বীনে ইলাহীর অনুসারীরাই এটা অপরিবর্তনীয় মনে করে


আমাদের দেশে এক শ্রেণীর কথিত বুদ্ধিজীবিদের দেখা যায়, যারা ৪৩টি পতিতালয়ের মালিক রবীন্দ্রের লেখা জাতীয় সংগীত পরিবর্তন এর কথা এলে চার পায়া প্রাণীর মতো চিৎকার করতে থাকে- জাতীয় সংগীত কোন অপরিবর্তনীয় বিষয় নয়। অথচ পৃথিবীর দেশে দেশে জাতীয় সংগীত পরিবর্তন ঘটেছে।

রঙ্গিন চাদরে মোড়া পৃথিবী🌿


রঙ্গিন চাদরে মোড়া পৃথিবী🌿 ———-@@——-@@——- এই সৃজনে ঘোরের মত্ম্যতায় পথযে আমার বাঁকা , মোর অন্তরের পরিবর্তন চাই হে আঁকা ! উৎসাহিত করেছেন দিবা নিশি রাসূলে খোদার বাণী, আমার ইচ্ছের মাঝে হয়না জিকির হয়না ফিকির খানি !! হেলায় ফেলায় সময় মোর গাফলতিতে

……..সুবাহানআল্লাহ


🌺শুক্রিয়া বেশুমার শায়েখ আলাইহিস সালাম উনার পবিত্র কলি.. কে তুমি যাও পোস্টার লিফলেটের মুহব্বতে অলি গলি… রিজানুল গায়েব পেশে খেদমতে সাথে আল্লাহ পাক উনার ওলি..!! ……..সুবাহানআল্লাহ https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=687273008869890&id=100027615900409

১৪৪২ হিজরী সনের পবিত্র মুহররমুল হারাম শরীফ মাস উনার চাঁদ দেখা গেছে


যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম, খলীফাতুল্লাহ, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, আহলু বাইতে রসূলিল্লাহ, রাজারবাগ শরীফ উনার মহাসম্মানিত মুর্শিদ ক্বিবলা সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম উনার মুবারক পৃষ্ঠপোষকতায় ও দিক-নির্দেশনায় পরিচালিত “মাজলিসু রুইয়াতিল হিলাল” উনার সংবাদ অনুযায়ী বাংলাদেশের আকাশে গতকাল ইয়াওমুল খামীস

সরকারের কথিত সীমিত পরিসর- যে সকল সাধারণ মানুষ কষ্টে আছে, সরকার কি তাদের বদদোয়াকে ভয় করে না?


সরকার কার কথা শুনে এ ধরণের সিদ্ধান্ত নিলো? সরকারী আমলা-কামলারাতো নানা পথে অঢেল টাকা-পয়সা কামিয়েছে, তাদেরতো চিন্তা থাকার কথা নয়। কিন্তু যে সকল দিনমজুর, দরিদ্র মানুষ যারা দিন আনে দিন খায়, তাদের ব্যপারে কি পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে? তাদেরকে যে সরকার ঘরের

করোনা নিয়ে ইউরোপ-আমেরিকা যা করছে, ৯৮ ভাগ মুসলমানের দেশ বাংলাদেশ তা কখনোই করতে পারে না। সরকারের এ কার্যক্রমে কোটি কোটি মানুষ বিনা চিকিৎসা ও খাদ্যাভাবে মরবে, আইন শৃঙ্খলা পুরো ভেঙ্গে পড়বে, রাষ্ট্রযন্ত্র ব্যর্থ হবে।


আন্তর্জাতিক সমীক্ষা অনুসারে বাংলাদেশে ৬ কোটি কর্মক্ষম লোক রয়েছে যারা শ্রমিক, রিক্সাচালক ইত্যাদি বিভিন্ন পেশায় যাদেরকে মূলত ডেইলী লেবারের সংজ্ঞায় ফেলা যায়। সমীক্ষা অনুসারে, এদের হাতে খাবারের টাকা থাকে মাত্র ৩ দিনের। এরপর এদের না খাবার পালা। সরকার যেভাবে মসজিদে যেতে

মাতৃভাষাকে মুহব্বত করা পবিত্র সুন্নত মুবারক উনার অন্তর্ভুক্ত। সুবহানাল্লাহ!


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- ‘আমি প্রত্যেক হযরত নবী ও হযরত রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে ক্বওমের ভাষা দিয়ে প্রেরণ করেছি।’ সুবহানাল্লাহ! প্রত্যেক হযরত নবী-রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদেরকে নিজ নিজ মাতৃভাষায় প্রেরণ করা হয়েছে। তাই মাতৃভাষাকে মুহব্বত করা পবিত্র সুন্নত

স্মৃতিস্তম্ভে ফুল দেয়ার প্রথা মুসলমানদের নয়


‘স্মৃতিস্তম্ভ’ ইংরেজিতে বলা হয়- `Monument’. World book -এ লেখা হয়েছে- monument is a structure usually a building or statue built in memory of a person or an event. অর্থাৎ স্মৃতিস্তম্ভ হচ্ছে- একটি অবকাঠামো, যা সাধারণত দালান জাতীয় অথবা মূর্তি, যেটা কোন

স্থল নদীপথ ও এয়ার ট্রানজিট এবং বাংলাদেশের বিপন্ন স্বাধীনতা


মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মাঝে পবিত্র ইরশাদ মুবারক করেন, “তোমরা জালিমও হয়ো না। আবার মজলুমও হয়ো না।” বর্তমানে বাংলাদেশের চট্টগ্রাম ও মংলা বন্দর ভারতকে বিনাশর্তে ব্যবহার করতে দেওয়ার মাধ্যমে মূলত বাংলাদেশকেই আজ অনানুষ্ঠানিক করদরাজ্যে পরিণত করা হচ্ছে।

পার্বত্য এলাকায় সুবিধাভোগী উপজাতিরা, অবহেলিত বাঙালিরা


প্রাচীনকাল থেকে বাংলাদেশ রূপের ভা-ার। আর এই রূপের কেন্দ্রবিন্দু হচ্ছে পার্বত্য চট্টগ্রাম। এখানে আঁকাবাঁকা পথ দিয়ে যেখানেই যাবেন দেখবেন শুধু সবুজ আর সবুজ। পাহাড়ের উপর দাঁড়িয়ে নিচের পানিধারার দিকে তাকাতেই চোখ জুড়িয়ে যাবে। পাহাড় বেয়ে স্বচ্ছ পানির ঝর্ণাধারার এতো সৌন্দর্য আর