Archive for the ‘হুযূরপাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম’ Category

সত্যিকারের মুসলমান কখনোই দ্বীন ইসলাম সংশ্লিষ্ট বিষয়ে কটূক্তি বা সমালোচনা সহ্য করবে না, করতে পারে না


যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি উনার কালাম পবিত্র কুরআন শরীফ সূরা বাক্বারা শরীফ ১৩নং পবিত্র আয়াত শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করে জানিয়ে দিয়েছেন যে, হযরত ছাহাবায়ে কিরাম রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম উনারা যেরূপ ঈমান এনেছেন তদ্রপ অন্যান্য সকলকে

সূত্রপাত হাদিয়া


সূত্রপাত হাদিয়া : আমার পরিচিত ব্যবসায়ী যিনি একসময় ঢাকার কর্ণফুলী গার্ডেন সিটি তে বুরকার ব্যবসা করতেন “টুটুল ভাই” ! তিনি কিছুদিন পূর্বে আমাকে মেহেরপুরের আম সম্পর্কে জানালেন আমিও উনাকে ১০/২০ কেজি আমের খরচ সহ মূল্য জানাতে বললাম ! উনি জানালেন এবং

মালিকুল মিনআম, ছহিবুল কারাম, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মুবারক শানে নিয়মিত পবিত্র দুরূদ শরীফ পাঠকারীদের জন্য অপরিসীম সুসংবাদ


واللهُ وَرَسُوْلُهٗۤ أَحَقُّ أَنْ يُّرْضُوْهُ إِنْ كَانُوْا مُؤْمِنِيْنَ অর্থ: যদি তারা মু’মিন হয়ে থাকে, তাহলে তাদের দায়িত্ব-কর্তব্য হলো, মহান আল্লাহ পাক উনাকে এবং উনার মহাসম্মানিত হাবীব, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে অর্থাৎ উনাদেরকে সন্তুষ্ট করা। উনারাই

নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ, হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ইসম বা নাম মুবারক উনার বেমেছাল ফযীলত মুবারক


মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র হাদীছ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, عَنْ حَضْرَتْ أَبِي هُرَيْرَةَ رضى الله تعالـى عَنه قَالَ قَالَ رَسُوْلُ اللهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ لَا يَدْخُلُ الْفَقْرُ بَيْتًا فِيهِ اسْمِي. অর্থ: “হযরত আবূ হুরায়রা রদ্বিয়াল্লাহু তা‘য়ালা আনহু উনার থেকে

ইয়া আঁকা কিবলায়ে কুলুব ইয়া গরীবে নেওয়াজ ইয়া মেশালে রহমাতুল্লিল আলামিন নজরে করম আতা কিজিয়ে…


🤲🌺🌻🌼🌿🌷 ইয়া আঁকা কিবলায়ে কুলুব ইয়া গরীবে নেওয়াজ ইয়া মেশালে রহমাতুল্লিল আলামিন নজরে করম আতা কিজিয়ে.. আমি সব গুলো নিতে চাই ইনশাআঁকা মামদুহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা ক্বাবা আলাইহিস সালাম খলীফাতুল্লাহ, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, ছাহিবু সাইয়্যিদিল আ’ইয়াদ শরীফ, আল জাব্বারিউল আউওয়াল, আল ক্বউইউল

হাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ১২ই রজবুল হারাম শরীফ। সুবহানাল্লাহ! মালিকুত তামাম, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ১২ই শরীফে’ মহাসম্মানিত বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ করেন।


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘তোমরা মহান আল্লাহ পাক উনার নিয়ামত মুবারক (নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে) স্মরণ করো।” সুবহানাল্লাহ! আজ মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র ১২ই রজবুল হারাম শরীফ। সুবহানাল্লাহ! মালিকুত তামাম, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ

পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালনকারী উম্মতদের জন্য নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র শাফায়াত মুবারক ওয়াজিব। সুবহানাল্লাহ!


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘তোমরা সকাল-সন্ধ্যা অর্থাৎ দায়িমীভাবে বা অনন্তকাল নূরে মুজাস্সাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার ছানা-ছিফত মুবারক বর্ণনা করো।’ সুবহানাল্লাহ! পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালনকারী উম্মতদের জন্য নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু

নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে নিয়ে শান মুবারক অবমাননাকারীদেরকে শরঈ শাস্তি প্রদান করা ওয়াজিব


নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্পর্কে, উনার সম্মানিত আহলু বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম অর্থাৎ উনার সম্মানিত আব্বা-আম্মা আলাইহিমাস সালাম উনাদের সম্পর্কে, উনার সম্মানিতা আওয়াজে মুত্বহহারাত হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের সম্পর্কে এবং উনার সম্মানিত আওলাদ

সুমহান সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন করার কারণে মৃত্যুদণ্ড থেকে পরিত্রাণ লাভ


বর্ণিত রয়েছে, খলীফা আব্দুল মালিক ইবনে মারওয়ানের খিলাফাতকালে শামদেশের এক সুদর্শন যুবক সে ঘোড়ায় চড়ে খেলতেছিল। একদিন হঠাৎ সে তার ঘোড়ার পিঠ থেকে পড়ে যায়। অতঃপর ঘোড়ার পিঠে উঠলে ঘোড়াটি তাকে নিয়ে শাম দেশের পথে চলতে শুরু করে। ঘোড়াটিকে সে থামাতে

সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামূল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার মুবারক শানে পরিভাষা মুবারক ও নামকরণের কারণ


খলীফাতুল্লাহ, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, ইমামুশ শরীয়ত ওয়াত ত্বরীক্বত, ইমামুল আইম্মাহ, মুহ্ইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, জাব্বারিউল আউওয়াল, ক্বওইয়্যুল আউওয়াল, আখাছছুল খাছ আহলে বাইত শরীফ, ইমামুল উমাম, আস সাফফাহ সাইয়্যিদুনা মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা কা’বা আলাইহিস সালাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, সাইয়্যিদুল

স্বয়ং যিনি খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি নিজেই সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিয়্যীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সম্মানিত যিকির মুবারক, সম্মানিত আলোচনা মুবারক, সম্মানিত শান-মান, ফাযায়িল-ফযীলত, বুযূর্গী-সম্মান মুবারক বুলন্দ থেকে বুলন্দতর করেছেন


মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন- وَرَفَعْنَا لَكَ ذِكْرَكَ. অর্থ: “আর (হে আমার হাবীব, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম!) আমি আপনার সম্মানিত যিকির মুবারক, সম্মানিত আলোচনা মুবারক, শান-মান, ফাযায়িল-ফযীলত, বুযূর্গী-সম্মান মুবারক বুলন্দ থেকে বুলন্দতর করেছি।” সুবহানাল্লাহ!

আজওয়াদুন নাস, আশজা’য়ুন নাস, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বেমেছাল সাখাওয়াতী বা দানশীলতা মুবারক


খলিক মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার যেমন অসংখ্য-অগণিত ছিফত মুবারক রয়েছেন, ঠিক একইভাবে উনার মহাসম্মানিত মাহবূব হাবীব, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনারও অসংখ্য-অগণিত ছিফত মুবারক রয়েছেন। সুবহানাল্লাহ! উনার অসংখ্য ছিফত মুবারক উনাদের মধ্যে একখানা মহাসম্মানিত